ভূরুঙ্গামারীতে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগ

ভূরুঙ্গামারীতে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগ ভূরুঙ্গামারীতে মামার শশুর বাড়িতে বেড়াতে যাওয়া এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।স্বজনরা বলছে মেয়েটিকে হত্যা করা হয়েছে।নিহত মেয়েটি ভূরুঙ্গামারী উপজেলার জয়মনিরহাট ইউনিয়নের বাইশমারী ফাযিল মাদ্রাসায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। মেয়েটির বাবা জানান,পাঁচ দিন আগে মেয়েটি তার মামির সঙ্গে মামির বাপের বাড়ি সদর উপজেলার কামাতআঙ্গারিয়াতে বেড়াতে গিয়েছিল।বুধবার দুপুরে মেয়েটি তার বাবার সাথে মোবাইলে কথা বলে এবং বাড়ি নিয়ে যেতে বলে।ঘণ্টাখানেক পর আত্মীয়র বাড়ি থেকে ফোনে জানানো হয় মেয়েটি অসুস্থ।খবর শুনে মেয়ের মা এবং মামা আত্মীয়র বাড়িতে যান।গিয়ে শুনতে পান মেয়েটি গলায় ফাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।কিন্তু কি কারণে আত্মহত্যা করেছে তা কেউ বলতে পারছিলোনা।পরে মেয়েটির মা চাচিরা মেয়েটিকে পরীক্ষা করে দেখেন মেয়েটির গোপনাঙ্গে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে।রক্ত বন্ধ করার জন্য সেখানে কাপড়ও ব্যবহার করা হয়েছে। এলাকাবাসী জানায় এ ঘটনায় বুধবার মেয়েটির বাবা থানায় মামলা করার জন্য যায় এবং পুলিশ হত্যার মামলা না নিয়ে অপমৃত্যুর মামলা নেয়।ধর্ষণের আলামত থাকার পরও হত্যা মামলা না নেওয়ায় বৃহঃস্পতিবার সকালে হত্যা মামলা রেকর্ড করার জন্য এলাকার পাঁচশতাধিক ব্যক্তি থানায় আসে। ভূরুঙ্গামারী থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির বলেন,বুধবার উপজেলার কামাতআঙ্গারিয়া গ্রামে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি। ওসি ইমতিয়াজ আরও বলেন,আত্মহত্যা কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে।সেজন্য ইউডি মামলা করা হয়েছে।ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে অপমৃত্যুর মামলাটি হত্যা মামলায় রুপান্তর করা হবে।এছাড়াও পুলিশ ঘটনার সঠিক তথ্য বের করতে তদন্ত করছে। মেয়েটির মামা বলেন, “মেয়েটির এভাবে আত্মহত্যার প্রশ্নই ওঠে না। মেয়েটিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here