জামালপুরে সাংবাদিক শেলু আকন্দের দু’পা ভেঙে দেওয়া ছাত্রলীগের শীর্ষ সন্ত্রাসী রাকিব গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৮:৫৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯

জামালপুরে সাংবাদিক শেলু আকন্দের দু’পা ভেঙে দেওয়া ছাত্রলীগের শীর্ষ সন্ত্রাসী রাকিব গ্রেপ্তার

আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম:

জামালপুর পৌরসভার কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুর ছেলে ও জেলা ছাত্রলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শীর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে কুখ্যাত রাকিব খানকে গ্রেপ্তার করেছে জামালপুর থানা পুলিশ।

আহত সাংবাদিক শেলু আকন্দকে (৫৫) জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি দৈনিক বাংলাবাজার ও জামালপুর শহর থেকে প্রকাশিত দৈনিক পল্লীকণ্ঠ প্রতিদিন পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার।

ঘটনার বর্ণনায় শেলু আকন্দ বলেন, “বুধবার রাত ১৮ ডিসেম্বর ১০টার দিকে শহরের দেওয়ানপাড়া সদর ভূমি অফিসের পেছনের রাস্তায় আমাকে রড দিয়ে পিটিয়ে দুই পা ভেঙ্গে ফেলে যায় সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে সদর থানার পুলিশ আমাকে উদ্ধার করে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে।”

এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা সন্ত্রাসী রাকিব ছাড়াও শহরের দেওয়ানপাড়ার রসুল মাহমুদ খানের ছেলে তুষার খান ও তুহিন খান ও সুনু খানের ছেলে স্বজন খান জড়িত বলে অভিযোগ করেন তিনি।

সাংবাদিক শেলু আকন্দ বলেন, গত ২৮ মে দুপুরে জামালপুর সদর সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় প্রাঙ্গণে জাল কাগজপত্রের মাধ্যমে জমির দলিল নিবন্ধনের তথ্য সংগ্রহ করতে যান দৈনিক কালের কণ্ঠের প্রতিনিধি মোস্তফা মঞ্জু। এ সময় তার উপর হামলা চালানো হয়।

“ওই হামলা মামলার সাক্ষী হওয়ায় আমার উপর এ হামলা করা হয়েছে।”

তিনি বলেন, “হামলাকারীরা সবাই সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর উপর হামলা মামলার আসামি। তাদের মধ্যে রাকিব, তুষার, তুহিন ও স্বজন মোস্তফা মঞ্জুর মামলায় কয়েকদিন কারাগারে ছিল।

“হামলার সময় তারা আমাকে বার বার বলেছে- এখন সাক্ষী দিতে যাবি না।”

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক গাজী মো. রফিকুল হক বলেন, “শেলুর দুই পায়ের হাড় ভেঙ্গে ও ফেটে গেছে। বৃহস্পতিবার তার শারীরিক পরীক্ষা করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

এ দিকে সাংবাদিক শেলুর হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান।

এর আগে সাংবাদিক মঞ্জুর উপর হামলার ঘটনায় জামালপুরের সাংবাদিকসহ বিভিন্ন মহলে ক্ষোভ দেখা দেয়। হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে জামালপুর প্রেসক্লাবসহ সারা জেলায় কমর্রত সাংবাদিকরা ধারাবাহিক আন্দোলন প্রতিবাদ কর্মসূচি করেন।

ওই ঘটনায় জেলার ৪৮ জন সাংবাদিক সদর থানায় সাধারণ ডায়েরিও করে নিরাপত্তা চেয়েছিলেন।

শেলুর হামলাকারীদের আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে জামালপুর সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ রাতেই রাকিব খানকে আটক করেছে। বাকিদের ধরতে অভিযান চলছে। এই ঘটনায় জামালপুরের শহরে টক অব দ্যা সিটিতে পরিণত হয়। সাধারণ মানুষ অনেকেই এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।



এ সংবাদটি 777 বার পড়া হয়েছে.
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

নামাজের সময় সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৩৮ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১১ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৬ অপরাহ্ণ
  • ৭:৪১ অপরাহ্ণ
  • ৫:৫২ পূর্বাহ্ণ

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

নতুন আঙ্গিকে শাহজালাল টিভি