আবরার হত্যায় উত্তাল সারাদেশের শিক্ষার্থী

ছবি : সংগ্রহীত

আবরার হত্যায় উত্তাল সারাদেশের শিক্ষার্থী

অনলাইন ডেস্কঃ
গত সোমবার সকালে আববারের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে সারাদেশের বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করেছে।
সারারাত নির্যাতনের পর শেষ রাতে নিজের রুমে আবরার রেখে যাওয়া হয় বলে বিভিন্ন গণমাধ্যে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে।
বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরারকে হলের একটি রুমে শাখা ছাত্রলীগ কর্মীরা নির্যাতন করে বলে হলের সিসি টিভি ফুটেজ থেকে জানা যায়।ফুটেজে দেখা যায় কয়েকজন শিক্ষার্থী গুরুত্বর আহত আবরারকে তার রুমের দিকে নিয়ে যাচ্ছে।
এ ঘটনায় সোমবার সাধারণ শিক্ষার্থীরা মিছিল কর।এতে পুলিশের ধাওয়া করার খবর পাওয়া গিয়েছিল।
আবরার হত্যার ঘটনায় ১৯ জনকে আসামী করে মামলা করা হয়েছে এবং ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যম হতে জানা গেছে।
শিক্ষার্থীদের ভাষ্যমতে আবরারকে হত্যার কারণ ফেসবুকে করা তার একটি পোষ্ট।
পাঠকদের পড়ার জন্য আবরারের পোষ্টটি অনুরুপ দেওয়া হলো:

১.৪৭ এ দেশভাগের পর দেশের পশ্চিমাংশেে কোন সমুদ্রবন্দর ছিল না। তৎকালীন সরকার ৬ মাসের জন্য কলকাতা বন্দর ব্যবহারের জন্য ভারতের কাছে অনুরোধ করল। কিন্তু দাদারা নিজেদের রাস্তা নিজেদের মাপার পরামর্শ দিছিলো। বাধ্য হয়ে দুর্ভিক্ষ দমনে উদ্বোধনের আগেই মংলা বন্দর খুলে দেওয়া হয়েছিল। ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে আজ ইন্ডিয়াকে সে মংলা বন্দর ব্যবহারের জন্য হাত পাততে হচ্ছে।

২.কাবেরি নদীর পানি ছাড়াছাড়ি নিয়ে কানাড়ি আর তামিলদের কামড়াকামড়ি কয়েকবছর আগে শিরোনাম হয়েছিল। যে দেশের এক রাজ্যই অন্যকে পানি দিতে চাই না সেখানে আমরা বিনিময় ছাড়া দিনে দেড়লাখ কিউবিক মিটার পানি দিব।

৩.কয়েকবছর আগে নিজেদের সম্পদ রক্ষার দোহাই দিয়ে উত্তরভারত কয়লা-পাথর রপ্তানি বন্ধ করেছে অথচ আমরা তাদের গ্যাস দিব। যেখানে গ্যাসের অভাবে নিজেদের কারখানা বন্ধ করা লাগে সেখানে নিজের সম্পদ দিয়ে বন্ধুর বাতি জ্বালাব।

হয়তো এসুখের খোঁজেই কবি লিখেছেন-
“পরের কারণে স্বার্থ দিয়া বলি
এ জীবন মন সকলি দাও,
তার মত সুখ কোথাও কি আছে
আপনার কথা ভুলিয়া যাও।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here