আগামীকাল প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাতঃযাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে বিশেষ নির্দেশনা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের

প্রকাশিত: ৭:১৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০২০

আগামীকাল প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাতঃযাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে বিশেষ নির্দেশনা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) বাদ ফজর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে এবারের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। এ পর্বে অংশ নিয়েছেন মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা। সকালের কনকনে শীত, ঘন কুয়াশা আর পৌষের শেষ দিকের ঠান্ডা বাতাসসহ নানা প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে ইজতেমার দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত করেছেন সমবেত লাখো মুসল্লি।

রোববার (১২ জানুয়ারি) আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে সম্পন্ন হবে প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমা।শনিবার বাদ ফজর পাকিস্তানের মাওলানা আবদুর রহমানের আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের ইজতেমা। সকালে ইজতেমার মাঠ ও আশপাশের এলাকা ঘুরে দেখা যায়, চারদিকে প্রচুর মানুষের সমাগম। সড়ক-মহাসড়কে লাইন ধরে হাঁটছেন মুসল্লিরা।

এদিকে ইজতেমার মাঠের জিম্মাদার ও তাবলিগের একাধিক মুরব্বি সূত্রে জানা গেছে, রোববার সকাল দশটার মধ্যে বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। লোক সমাগম বেশি হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিন বাদ ফজর হেদায়েতি বয়ান করবেন মাওলানা জিয়াউল হক, আখেরি মোনাজাতের আগে বিশেষ বয়ান করবেন মাওলানা ইবরাহীম দেওলা। আর বিশ্ব মুসলিমের শান্তি ও কল্যাণ কামনা করে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন কাকরাইলের মুরব্বি মাওলানা মো. জোবায়ের। মাওলানা জোবায়ের ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন।

ইজতেমায় লোক উপস্থিতিতে অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, টঙ্গীর ইজতেমার মাঠ ও এর আশাপাশের এলাকায় অবস্থান নেয়া মুসল্লির সংখ্যা ৮০ লাখ ছাড়াবে। দেশের ৬৪ জেলা থেকে তাবিলগের সাথীরা ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন। ইজতেমামুখী মুসল্লিদের ঢল অব্যাহত রয়েছে। এ ঢল অব্যাহত থাকবে আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত।

বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে মুসল্লিদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে যান চলাচল ও পার্কিং সংক্রান্ত এই নির্দেশনা দেয়া হয়। মোনাজাতের দিন যানবাহন চলাচলে শৃঙ্খলা রক্ষা ও যানজট এড়ানোর জন্য সবার সহযোগিতা কামনা করেছে ডিএমপি।

আখেরি মোনাজাতের দিন রোববার (১২ জানুয়ারি) ও আগামী ১৯ জানুয়ারি ভোর ৪টা থেকে যে সকল রাস্তা যান চলাচলে নিয়ন্ত্রণে থাকবে-

মহাখালী ক্রসিং

  • হোটেল র‌্যাডিসন গ্যাপ
  • প্রগতি সরণি
  • কুড়িল ফ্লাইওভারের নিচে লুপ-২
  • ধউর ব্রিজ
  • বেড়িবাঁধ সংলগ্ন উত্তরা ১৮নং সেক্টরের প্রবেশ মুখ
  • ডাইভারশন চলাকালীন

আশুলিয়া থেকে আব্দুল্লাহপুরগামী যানবাহনসমূহ আব্দুল্লাহপুর না এসে ধউর ব্রিজ ক্রসিং দিয়ে ডানে মোড় নিয়ে মিরপুর বেড়িবাঁধ দিয়ে চলাচল করবে।

  • মহাখালী বাস টার্মিনাল হতে আব্দুল্লাহপুরগামী আন্তঃজেলা বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসহ সকল প্রকার যানবাহন মহাখালী ক্রসিং-এ বামে মোড় নিয়ে বিজয় সরণী-গাবতলী দিয়ে চলাচল করবে।
  • কাকলী, মিরপুর থেকে উত্তরাগামী বড় বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসমূহকে হোটেল র‌্যাডিসন গ্যাপে ডাইভারশন প্রদান করা হবে। উল্লিখিত যানবাহনসমূহকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের জন্য বলা হলো।
  •  কাকলী, মিরপুর হতে উত্তরাগামী প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, সিএনজিসমূহকে নিকুঞ্জ-১ গেটের সামনে ডাইভারশন প্রদান করা হবে। উল্লিখিত যানবাহনসমূহকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের জন্য বলা হলো।
  • প্রগতি সরণি থেকে আব্দুল্লাহপুরগামী যানবাহনসমূহ কুড়িল ফ্লাইওভারের নিচে লুপ-২ এ ডাইভারশন প্রদান করা হবে। উল্লিখিত যানবাহনসমূহকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের জন্য বলা হলো।
  • বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতের দিন অর্থাৎ ১২ ও ১৯ জানুয়ারি বিমান অপারেশনস ও বিমান ক্রু বহনকারী যানবাহন, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স বিমানবন্দর সড়ক ব্যবহার করে চলাচল করতে পারবে।
  • বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতের দিন অর্থাৎ ১২ ও ১৯ জানুয়ারি বিমানের অপারেশনস ও বিমান ক্রু বহনকারী যানবাহন, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স ব্যতীত সকল প্রকার যানবাহনের চালকদের বিমানবন্দর সড়ক পরিহার করে বিকল্প হিসেবে মহাখালী, বিজয় সরণি হয়ে মিরপুর-গাবতলী সড়ক ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ করা হলো।
  • বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতের দিন ১২ ও ১৯ জানুয়ারি ভোর ৪টা থেকে বিদেশগামী বা বিদেশ ফেরৎ যাত্রীদের নিকুঞ্জ-১ থেকে বিমানবন্দরে আনা-নেয়ার জন্য ট্রাফিক উত্তর বিভাগের ব্যবস্থাপনায় ২টি মিনিবাস ও ২টি মাইক্রোবাস ফ্রি পরিবহন সেবার জন্য নিকুঞ্জ-১ আবাসিক এলাকার গেইটে মোতায়েন থাকবে।

নয় মুসল্লির মৃত্যু
ইজতেমায় যোগ দিতে আসা এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নয় জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তারা হলেন- রাজশাহীর চারগাছ থানার বনকিশোর এলাকার আব্দুর রাজ্জাক (৬৭), কুমিল্লার দেবিদ্বার থানার ডিমলা এলাকার তমিজ উদ্দিন (৬৫), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ থানার বড়তোল্লা এলাকার মো. শাহজাহান (৬০), বরিশালের গৌরনদী থানার খালিজপুর এলাকার আলী আজগর (৭০) এবং নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানার দক্ষিণ-কলাবাগান এলাকার মো. ইউসুফ আলী মেম্বার (৪৫)।

 

sf/394

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

বিজ্ঞাপন

cloudservicebd.com