অপহরণের পর আটকে রেখে ধর্ষণ:সাতদিন পর উদ্ধার স্কুল শিক্ষার্থী,আটক অপহরণকারী

প্রকাশিত: ৬:৩৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

অপহরণের পর আটকে রেখে ধর্ষণ:সাতদিন পর উদ্ধার স্কুল শিক্ষার্থী,আটক অপহরণকারী

অপহরণের পর আটকে রেখে ধর্ষণ:সাতদিন পর উদ্ধার স্কুল শিক্ষার্থী,আটক অপহরণকারী

অনলাইন ডেস্কঃ
গাইবান্ধার সাঘাটায় এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে সাত দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।আটক অপহরণকারী প্রিন্স মিয়া (২২) পেশায় আটোরিকশাচালক।উদ্ধার হওয়া ছাত্রী সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

সোমবার (১১ নভেম্বর) সকালে উপজেলার ভরতখালি ইউনিয়নের উল্যা বাজার থেকে প্রিন্সকে আটক করে পুলিশ। সে সময় ভিকটিম ওই স্কুলছাত্রীকেও উদ্ধার করা হয়।

আটক প্রিন্স মিয়া উপজেলার বোনারপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম রাঘবপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুস সামাদের ছেলে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,, গত ৩ নভেম্বর থেকে নিখোজ ওই স্কুল ছাত্রী।ওইদিন স্কুল থেকে বাড়িতে ফেরার পথে অটোরিকশাচালক প্রিন্স তাকে বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে অটোতে তোলে।পরে কৌশলে তাকে অপহরণ করে অজানা একটি স্থানে নিয়ে যায়।এদিকে তার কোনো খোঁজ না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা বোনারপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ করে। পরে সে অভিযোগের প্ররিপেক্ষিতে সোমবার সকালে ভরতখালি ইউনিয়নের উল্যা বাজার এলাকার ওয়াহেদুল ইসলামের বাড়ি থেকে অভিযুক্ত প্রিন্স মিয়াকে আটক করে পুলিশ এবং এ সময় ওই স্কুলছাত্রীকেও উদ্ধার করা হয়।।

বোনারপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এনায়েত কবির বলেন,, স্কুলছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযুক্ত প্রিন্সকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এসএফ-১৮৪

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

বিজ্ঞাপন

cloudservicebd.com