অধিনায়ক মাশরাফির প্রতি ভালোবাসা

প্রকাশিত: ৮:৩৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ৭, ২০২০

অধিনায়ক মাশরাফির প্রতি ভালোবাসা

থামতে হবে সবাইকে একদিন না একদিন, যে যার ভালো যত তারাতাড়ি বোঝে জগতের সেই সবচেয়ে ভালো মানুষ।এটাই যথার্থ সুযোগ ছিল আপনার যদিও আপনি ঘাড়তেড়া বসবেন কি-না জানি না। তবে অপমানিত হইয়েন না সম্মানিত আছেন সবার কাছে সেখানেই থাকেন। আর ক্রিকেটে ফিরার দরকার নাই,এটাই অবসর ভেবে নেন।

অধিনায়ক মাশরাফির অধ্যায়ের শেষ ওয়ানডে ছিল গতকাল, আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি ঐটাই যেন খেলোয়াড় মাশরাফিরও শেষ ম্যাচ হয়।যা দিয়েছেন তা ক্রিকেট প্রেমি বাঙ্গালী আজীবন মনে রাখবেন এরচেয়ে বেশি আপনার দেওয়ার কিছু নাই।

নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা কেপ্টেন, শুধু বাংলাদেশের নয় ইতিহাসেও মনে হয় গোটা-কয়েক কেপ্টেন আছেন যারা কি-না ৮৮ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে ৫০ ম্যাচে জয় লাভ করেছেন। ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা ডেডিকেটেড সেটা বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য অনন্ত দৃষ্টান্তমূলক উদাহরণ হয়ে থাকবে।

ক্রিকেট ইতিহাসে শচীন টেন্ডুলকারের মতো এত মানুষের দেবতাপূজা আর কেউ পাইনি।সেই টেন্ডুলকার যখন তার ক্যারিয়ার শেষের দিকে আন্ডারপারফর্ম করেও খেলা চালিয়ে নিয়েছেন তখন তাকে বার বার শুনতে হয়েছে কবে রিটায়ার্ড করবেন আপনার অস্বস্থি হয় কি-না!! স্পোর্টসের দুনিয়াটাই এমন, এখানে অতীতের আবেগের যায়গা নেই। এখানে প্রতিনিয়ত পারর্ফম করতে হয় এবং যারা পাটর্ফম করেন তাঁরা দেবতার সম্মান পান,যাঁরা অপর্ফমে থাকেন তাদের সমালোচনা হয় সে যত-বড়ই খেলোয়াড় হউক না কেন।লেখতে গেলে অনেক কিছু লেখা যায় ভালো থাকুন সবসময় যেখানে থাকুন। #প্রিয়_কৌশিক

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

বিজ্ঞাপন

cloudservicebd.com